1. admin@alokitobangla24.com : admin :
  2. zunaid.nomani@gmail.com : Zunaid Nomani : Zunaid Nomani
শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ০১:২৫ অপরাহ্ন

নিজস্ব ভাষা ও চিন্তার ফসল মো. শফিকুর রহমানের ‘কবি কবিতা ও নারী’

আলোকিত বাংলা ২৪ ডেস্ক
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১
  • ২৬০ বার পঠিত
  • আলোকিত বাংলা সাহিত্য ডেস্কঃ কবি কবিতা ও নারী। বইটির প্রকাশক মহীয়সী প্রকাশ। প্রচ্ছদ করেছেন ওয়ালিউল ইসলাম। মূল্য ১৫০ টাকা।
    কবি ও নারী মাঝে কবিতা। কবি এমনই একটি সত্ত্বা যার কোনো স্ত্রীবাচকতা হয় না। ঠিক কবিতারও স্ত্রীবাচকতা হয় না। আর কবি, কবিতা ও নারী এই তিনটি বিষয়ই রহস্যময়, কৌতুহলদীপ্ত। একজন মানুষ যখন কবি হয়ে ওঠেন তখন তার মধ্যে নারীত্ব কিংবা পুরুষত্ব থাকে না। তিনি পরিণত হন এক মহামানুষে। তার মধ্যে ক্ষুধা, তৃষ্ণা, প্রেম, প্রকৃতি থেকে শুরু করে পৃথিবীর সবকিছু এসে ধরা দেয় শব্দরূপে। তার চারপাশের জগৎ হয়ে ওঠে আপেক্ষিক। তার অভ্যন্তরীণ অনুভূতি আবেগ কল্পনা স্বপ্ন সব একাকার হয়ে যায়। তিনি ক্রমে ক্রমে পরিণত হন এক মৌলিক সত্বায়। কবি হয়ে ওঠেন এক ও অনন্য।

    কবি কবিতা ও নারী শিরোনামের কাব্যগ্রন্থটি নিয়ে এ আলোচনাকে আরো সম্প্রসারণ করা যেতে পারে। এই বইটি লিখেছেন মো. শফিকুর রহমান। তিনি পেশায় ব্যাংকার। সৎ ও স্বাচ্ছন্দময় জীবন যাপন করছেন। খুব সিরিয়াস না হলেও লেখালেখিতে মোটামুটি নিয়মিতই বলা চলে। তার নিজস্ব ভাষা ও চিন্তার ফসল বলা যায় এই কাব্যগ্রন্থটিকে। বিষয় নতুন কিছু না হলেও তার চিন্তায় আছে নতুনত্ব। তিনি কবিকে নিয়ে কী ভাবেন? তিনি কবিতাকে নিয়ে কী ভাবেন? তিনি নারীকে নিয়ে কী ভাবেন? এসবের একটি সনদ পাওয়া যাবে তার এ বইটির পৃষ্টায় পৃষ্টায়।

    ‘কবিতা কষ্ট বিরহী তান/কবিতা হৃদয় মথিত গান/কবিতা প্রকৃতির বিবরণ/কবিতা রমণীর আভরণ/কবিতা নীলার নীলাম্বরী/কবিতা ব্যথিতের সহচরী/কবিতা প্রেমের অমর ভাষা/কবিতা দুটি মন কাছে আসা/কবিতা কবির গোপন কথা/কবিতা সমাজের চালু প্রথা/কবিতা মানে নাকো কোনো বিধি/কবিতা সময়ের প্রতিনিধি।’
    (কবিতা/পৃষ্টা-৯)

    ‘শৈশবে থাকে অতীব কোমল/কৈশোরে পয়োমন্ত/যৌবনে থাকে অতি সাবধান/নারীত্ব থাকে ঘুমন্ত/পিতার ছায়ায় মাতার মায়ায়/পেয়ে সে আদর যতœ/যুবতী কন্যা বিকশিত হয়/ঝিনুকের মাঝে রতœ।/তবে সে যুবতী কবে হয় নারী/কবে হয় পরিপূর্ণ/দেহ ও মননে পূর্ণ বিকাশ/নারী রূপে পরিগণ্য/নরের ছোঁয়ায় পূর্ণতা পেয়ে/নারী বলে হয় গণ্য/নরের ছায়ায় চিরকাল নারী/নারীত্ব করে ধন্য।’
    (নারী/পৃষ্টা-১৩)

    শফিকুর রহমানের এ কবিতা দুটির মধ্য দিয়ে তার কবিতা ও নারী ভাবনার বিষয় দুটি উঠে এসেছে। কবিতা সব সময় ঈঙ্গিতবহ হয় না। সব কথায় রহস্য করা যায় না। কবিতার দাবি পূরণ না করতে পারলেও কিছু কথা প্রকাশ করতেই হয়। আসলে আমাদের সমাজ ও রাষ্ট্র ব্যবস্থায় এতো এতো অনিয়ম এতো এতো বিশৃঙ্খলা যা শুধুমাত্র একজন কবিকে নয় একজন সাধারণ মানুষকেও বিক্ষুদ্ধ করে তোলে। তখন কথা বলতেই হয়। এ সূত্র ধরেই কবি শফিকুর রহমান তার কবিতাকে মলাটবদ্ধ করেছেন। ৬৪ পৃষ্টার এ বইটিতে রয়েছে ৫৩টি কবিতা।

    কিছু কবিতার মধ্যে আঞ্চলিক শব্দের প্রয়োগ ও ছন্দের ব্যবহার করেছেন কবি। নৈসর্গিক প্রেমের প্ররোচণা দেয় তার কবিতা পাঠে। অসচেতনতা বা অতিকথন নেই তার কবিতার মধ্যে। কিছু সাধু ভাষা ব্যবহার করছেন তিনি কবিতার মধ্যে তা কতোটা রীতিসিদ্ধ বা ব্যাকরণসম্মত তার থেকে দেখার বিষয় পাঠক কীভাবে এগুলো গ্রহণ করে তা। শিল্পের বিশুদ্ধতা বিষয়টি নিয়ে অনেক তর্ক বিতর্ক থাকলেও আমরা শিশুদের যেমন ভালোবাসি তেমনি তার আধো আধো ভুল শুদ্ধ কথাকেও ভালোবাসি। আমাদের এ কাব্যেও কবির যাবতীয় বিচ্যুতিকে অতিক্রম করে তাকে অনুপ্রেরণা দেয়াই আমাদের পাঠকদের কর্তব্য। আরও ভালো ভালো কবিতা উঠে আসুক এ কবির হাত থেকে।

    বই আলোচনাটি লিখেছেন: কিং সউদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ আলোকিত বাংলা ২৪
Theme Customized BY Theme Park BD